89000 টাকা বেতন পাওয়া এই সরকারী স্কুলের শিক্ষকরা কেউ গেম খেলছে, কেউ রোদ পুয়াচ্ছে, 16 জনের মধ্যে 5 জন এসেছে স্কুলে, IAS অফিসার স্কুলে হানা দিতেই ভিডিও হলো ভাইরাল

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিনিয়তই কিছু না কিছু ভিডিও বা ছবি ভাইরাল হতেই থাকে। কখনও বা পশুপাখির, কখনও সেলেব্রিটির, কখনও বা কোন মানুষের ভালো কাজের ভিডিও সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হয় প্রতিনিয়ত। সম্প্রতি রাজস্থান ক্যাডারের আই.এ.এস ডক্টর সমিত শর্মার ভিডিও, যিনি তাঁর কাজের জন্য পরিচিত তার ভিডিও সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হচ্ছে।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি সরকারি স্কুলের আশ্চর্য পরিদর্শনের, যেখানে পরিদর্শন শেষ করে স্কুল কর্মচারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখানকার শিক্ষকরা প্রতিমাসে 89,000 টাকা পর্যন্ত বেতন পায় কিন্তু শিশুদের পড়ানোর পরিবর্তে তারা আড্ডা দেয়, রোদ পোহায় এবং মোবাইলে গেম খেলে।

ডক্টর সমিত শর্মা, বর্তমানে তিনি যোধপুরের বিভাগীয় কমিশনার এবং তিনি অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার অরা পুরোহিতের সাথে যোধপুর থেকে জালোরে যাচ্ছিলেন। তাদের রাস্তাতেই একটি সরকারি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় তারা পৌঁছান হঠাৎ করেই।

সেখানে পৌঁছে সেখানকার পরিস্থিতি দেখে আই.এ.এস অফিসারের চক্ষু চড়কগাছ। পরিদর্শনের সময় তিনি জানতে পারলেন যে 16 জন শিক্ষকের মধ্যে মাত্র 5 জন শিক্ষক উপস্থিত আছেন এবং যে ক’জন উপস্থিত আছেন, তারা না পড়িয়ে গল্প করছেন, কেউ কেউ ফোনে গেম খেলছেন।

ডক্টর শর্মা এই সরকারি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবস্থা দেখে নিজের ক্ষো_ভ প্রকাশ করেছেন এবং এর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও বলেছেন এবং প্রতিষ্ঠানের প্রধান জ্যোতি গোস্বামীর কাছ থেকেও তিনি বিদ্যালয়ের উপস্থিতি খাতা কেড়ে নেন। কারণ, পরিদর্শনকালে তিনি দেখেছেন যে অধ্যক্ষ জ্যোতি গোস্বামী পরিদর্শক দল আসার পরপরই খালি পড়ে থাকা রেজিস্ট্রারের কলামগুলি পূরণ করার চেষ্টা করেছিলেন। পরিদর্শনের পর যোধপুরের বিভাগীয় কমিশনার আই.এ.এস ডক্টর শর্মা, পালি জেলা কালেক্টর পালিকে 17-সি.সি.এ এর অধীনে অধ্যক্ষ জ্যোতি গোস্বামী এবং জেলা শিক্ষা অফিসার পালিকে চার্জশিট দেয়ার নির্দেশ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button