সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড়ের গতিতে ভিডিও ভাইরাল, হনুমানের মন্দিরের ঢুকে হনুমান স্বয়ং পূজো করছেন

সাধারণভাবে আমাদের আশেপাশে অথবা অন্য জায়গায় এমন অদ্ভুত কিছু ঘটনা ঘটে যেগুলো আমাদের সত্যিই মুখের ভাষা কেড়ে নেয়। সব ঘটনা হয়তো আমাদের চোখের সামনে ঘটে না কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া মারফত আমরা সবকিছুই চোখের সামনে খুব সহজেই দেখতে পেয়ে থাকি।এরকমই একটি অস্বাভাবিক ঘটনা ঘটলো যা দেখে, সকলেই হতবাক। একটি হনুমান নিজের মন্দিরে ঢুকে নিজের পুজো করছেন এমনই দেখা গেল একটি ভিডিওতে, যেটা ভীষণ পরিমাণে ভাইরাল হয়ে গেছে।

আমাদের আশেপাশে অনেক হনুমান মন্দির রয়েছে এবং হনুমান ঠাকুর বিপদ সংকট হরণ করে এটাই আমরা জানি, এবং বিপদ কাটানোর জন্য হনুমান চল্লিশা আমাদের জীবনে কতটা প্রয়োজন সেটা সম্পর্কে আমরা জানি।প্রত্যেক হনুমান মন্দিরেই হনুমান চল্লিশা পড়ে দর্শকসহ পূজারী সকলেই হনুমানজীর পুজো দিয়ে থাকেন।

তবে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পর আমাদের সকলেরই বোঝা উচিত যে, শুধুমাত্র মানুষের মনের ঈশ্বরের সাধনার জন্য ভক্তি থাকে তা নয়, ঈশ্বরের প্রতি ভক্তি আছে সবার এবং যে যার মত করে সেই ভক্তি প্রদর্শন করে থাকে। কিছুদিন আগেই হঠাৎ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভীষণভাবে ভাইরাল হয়ে যায়, সেখানে ভিডিওটি প্রায় মিলিয়ন এর কাছাকাছি লাইক পায় এবং ভিউয়ার্স পায় ভীষণভাবে।

ভিডিওটিতে দেখা যায় যে হনুমান ঠাকুরের মন্দিরে নিজেই নিজের পুজো করতে চলে এসেছে হনুমান। মন্দিরে তখন পুজো দিতে ব্যস্ত ছিলেন ঠাকুর মশাই। হঠাৎই তীরের বেগের মতো কোথা থেকে চলে এলো এক হনুমান। উঠে গেল ঠাকুরমশাই মাথার ওপর এবং সেখানে বসেই ঠাকুরমশাই হনুমান চল্লিশা পাঠ করার শুনছিল।

কখনো সে উপরে বসে আবার কখনো নীচে, কখনো তাকে দেখা যায় হনুমান ঠাকুরের সামনে হাত জোর করতে।এইরকম একটি অস্বাভাবিক ভক্তিপূর্ণ ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদের সকলের চোখের সামনে আসে এবং যেখানে আমরা সত্যিই বুঝতে পারি যে মানুষ ছাড়াও ঈশ্বর সাধনায় পশুরাও গভীরভাবে যুক্ত থাকতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button