বাস্তুশাস্ত্র মতে ভুলেও বাড়ির এই জায়গায় কখনো আয়না লাগাবেন না, দেখা দেবে অর্থাভাব

প্রাচীনকাল থেকেই হিন্দুধর্মের লোকেরা কমবেশি বাস্তুশাস্ত্র মেনে চলেন এবং বাস্তুশাস্ত্র মেনে চললে সফলতা পাওয়া যায় বলে বিশ্বাস করেন।বর্তমান যুগে সকলেরই ইচ্ছে হয় প্রচুর অর্থের মালিক হবেন। কিন্তু অধিকাংশ মানুষেরই এই আশা বাস্তবায়িত হয়না।এমন হয় কিজন্য তার বর্ণনা পাওয়া যায় এই বাস্ত শাস্ত্রে।

ভারতীয় শাস্ত্র মতে কিছু বস্তুদোষ আমাদের দারিদ্রতা ও আর্থিক অনটনের জন্য দায়ী। তাই এই শাস্ত্র অনুযায়ী আয়না ব্যাবহার করার মাধ্যমে এই দুঃখ দুর করা সম্ভব। বলা হয়, মুখ নাকি মনের আসল আয়না তাই মন পরিষ্কার থাকলেই মুখে ও তার প্রতিফলন দেখা যায় এবং নিজেকে খুশি রাখার ক্ষমতা অনেকটা নিজের হাতেই। তবে,এই খুশি অনেকটা নির্ভর করে আপনার পরিবার এবং আপনার কাছে কত টাকা আছে তার ওপর। মূলত, এগুলি নির্ভর করে বাস্তুশাস্ত্রের উপর। বাস্তুশাস্ত্র মতে, এই আয়না সহজেই বাড়ির বাস্তুদোষ দূর করতে পারে।

বাড়ির নির্দিষ্ট জায়গায় আয়না রাখুন আর নিজেই নিজের ভাগ্যের পরিবর্তন করুন। এতে যে শুধু পরিবারের উন্নতি হয় তা নয়, সেই সঙ্গে দ্রুতগতিতে বাড়তে থাকবে ব্যাংক ব্যালেন্স। তাহলে আসুন জেনে নেয়া যাক প্রচুর অর্থ লাভের জন্য কীভাবে আয়না ব্যবহার করবেন।সকালে ঘুম থেকে উঠেই নিজের চেহারা কখনোই আয়নায় দেখবেন না। তাতে নেগেটিভ এনার্জি শরীরে প্রবেশ করতে পারে। তাই রাতে শোওয়ার আগে আয়নার উপর কোনো কাপড় বা অন্য কিছু দিয়ে ঢেকে রাখবেন।

শাস্ত্র অনুযায়ী ঘরের পূর্বদিকে আয়না রাখলে তাতে স্বাস্থ্যের উপর ভালো প্রভাব পরে এবং সন্তান প্রাপ্তির ও সম্ভবনা থাকে। শুধুমাত্র পূর্বদিক না উত্তরদিকে ও আয়না রাখলে আপনার সমস্যা দূর হবে। ঘরের উত্তরদিকে যদি দরজা জানলা না থাকে তাহলে সেখানে যায়না রাখুন। কারণ উত্তরদিকে ধনসম্পদের দেবতা কুবেরের দিক বলে মনে হয়। তাই উত্তরদিকে আয়না রাখলে আপনার জীবনে সুখ শান্তিতে ভোরে উঠবে।

শুধুমাত্র শোওয়ার ঘরেই আয়না রাখলে সংসারে উন্নতির সম্ভাবনা থাকে তা নয় আপনারা যদি রান্নাঘরের সামনে ও আয়না রাখেন তাতে আপনাদের ব্যাবসার উন্নতি এবং ধনসম্পত্তি বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভবনা থাকে।

বাড়ির বাস্তুদোষ দূর করতে এবং অর্থভাগ্যের পরিবর্তন করতে অবশ্যই এই নিয়মগুলি মেনে চলুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button