বন্যার জলে গ্রামের মধ্যে লোকালয়ে ঢুকে পড়েছে এক বিশাল কুমির, অতপর যা হলো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সেই ভিডিও

চলতি বছরে প্রবল বর্ষণের জন্য বহু জায়গা জলমগ্ন হয়ে গিয়েছিল। চারিদিক বন্যায় ভেসে যাওয়ার কারণে প্রচুর খাদ্য শস্য নষ্ট হয়ে যায়। জলমগ্ন হয়ে থাকার কারণে ব্যাহত হয়ে যায় জনজীবন। রাস্তায় উঠে আসে মাছ। কলকাতা রাস্তায় আমরা গিরগিটি ঘুরে বেড়াতে দেখতে পেয়েছি এই বর্ষার সময়।

কিন্তু তা বলে একেবারে আস্ত একটি কুমির? সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখতে পাওয়া গেল বন্যায় চারিদিক ভেসে যাবার ফলে জলমগ্ন হয়ে রয়েছে চারিদিক। পথঘাট রাস্তা কিছুই আলাদা করে চেনার উপায় নেই। বাড়ির মধ্যে ঢুকে পড়ছে জল। আর সেই জলের মধ্যেই হেঁটে বেড়াচ্ছে আস্ত একটি কুমির।

সম্প্রতি গুজরাটের ভাদদরা এলাকায় দেখতে পাওয়া গেছে এমন একটি দৃশ্য। স্বাভাবিকভাবেই আস্ত একটি কুমিরকে এইভাবে চলাচল করতে দেখে সকলেই ভয় পেয়ে যান। দিগ্বিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে সকলে ছুটতে আরম্ভ করে দেয়। তার মাঝেই লাঠিসোটা নিয়ে বেরিয়ে পড়েন কিছু মানুষ কুমিরকে ভয় দেখানোর জন্য।

এদিকে মানুষের পাশাপাশি ভয় পেয়ে গেছে কুমির নিজেও। প্রবল বৃষ্টিপাতের জন্য আজ সে ভীষণ ভাবে অসহায়। সে প্রাণ হাতে করে লোকালয়ে ঢুকে পড়ে। তাই মানুষের পাশাপাশি আজ কুমিরের ভীষণ ভাবে বিপর্যস্ত, যদিও বন্যপ্রাণীদের এইভাবে বিপদের মুখে ঠেলে দিয়েছি আমরাই। যেভাবে আমরা বনজঙ্গল অবাধে কেটে সাফ করে দিচ্ছি, তাতে করে এই প্রাণীরা প্রাণ বাঁচানোর জন্য লোকালয়ে ঢুকে পড়তে বাধ্য হয়ে যাচ্ছে।

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হবার সাথে সাথে ভাইরাল হয়ে যায়। বহু মানুষ এই দৃশ্য দেখে আরো একবার চিন্তিত হয়ে পড়েছেন। অনেকেই পরামর্শ দিয়েছেন যে আরো বেশি করে আমাদের পরিবেশ সচেতন হতে হবে। পুকুর বুজিয়ে ফ্ল্যাট করে দিলে চলবে না। বনজঙ্গল কেটে পরিষ্কার করে দিলে চলবে না।এভাবেই যদি ঘন জঙ্গল কেটে ফেলি আমরা, তাহলে অদূর ভবিষ্যতে আমাদের আরো অনেক বিপদের সম্মুখীন হতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button