ছাত্রদের চাপ কমাতে পড়ার ফাঁকে দীঘা ঘুরে আসার নিদান মুখ্যমন্ত্রীর! তিনি বলেন চাপ নিলে সব ভুলে যাবে

বৃহস্পতিবার মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক, হাই মাদ্রাসা বোর্ডের কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের সংবর্ধনা দেওয়া হয় রাজ্যের তরফ থেকে। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি সমস্ত পড়ুয়াদের মানসিক চাপ থেকে মুক্ত থাকার কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, বেশি চাপ নিলে সবকিছু ভুলে যাবে। অতএব চাপ বেশি নেবে না। এক জায়গায় বসে না থেকে মাঝে মাঝে হাঁটাচলা করবে। চেষ্টা করবে বেশি মানুষের সাথে কথা বলতে। সবসময় পড়াশোনা করলে মানসিক চাপ সৃষ্টি হতে পারে। তাই পড়াশোনার বাইরে এক্সট্রা কারিকুলাম একটিভিটিস করতে হবে।

অন্যদিকে মন দেবার জন্য মাঝে মাঝে ভালো গান শুনতে হবে, ভালো বই পড়তে হবে। বাড়িতে সকলের সঙ্গে সময় কাটাতে হবে। কাছেপিঠে দিঘা ঘুরে আসা যায় কারণ করোনা এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। মানসিক চাপ কমানোর জন্য খাতায় কিছুক্ষণ হিজিবিজি দাগ কাটতে পারেন।

বৃহস্পতিবার ১৭০০ জন কৃতী ছাত্র ছাত্রীকে নিজের লেখা বই সহ অন্যান্য উপহার সামগ্রী দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়া সকলকে একটি করে ল্যাপটপ এবং ১০ হাজার টাকা দেওয়া হয় এদিন। রাজ্য সরকার জানিয়েছেন, পড়ুয়াদের সুবিধার জন্য দ্রুত একটি পোর্টাল চালু করা হবে যার নাম দেওয়া হবে, ক্যারিয়ার গাইডেন্স। একটি ক্লিকের মাধ্যমে বিশ্বের সমস্ত কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য পাওয়া যাবে এই পোর্টালের মাধ্যমে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরো বলেন, বোর্ড পরীক্ষায় ৬০ শতাংশ নম্বর পেলে পাওয়া যাবে স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ। আগে স্কলারশিপ পাওয়ার জন্য ৭৫ শতাংশ নম্বর পেতে হত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button