গঙ্গা জলের এই টোটকা গুলো পালনে আপনার খারাপ সময় কেটে যাবে, জীবনে কোনোদিনও টাকার অভাব হবে না।

খারাপ সময়ে কিছুতেই কাটতে চায়না। আর সময়কে ঠিকঠাক ব্যবহার করতে না পারলে সমস্যা আরও বাড়তে থাকে। মনে হয় নিজের থেকে বেশি দুর্ভাগা বোধ হয় আর কেউ নেই! এম পরিস্থিতি সকলের জীবনেই আসে। তবে সেই পরিস্থিতিকে কাটিয়ে নিয়ে কয়েকটি পদ্ধতি অবলম্বন করেলই সমস্যা কেটে যায়। দেখে নেওয়া যাক জ্যোতিষ ও বাস্তু মতে কী কী করলে দুর্ভাগ্য দূর করে সৌভাগ্য লাভ করা যায়। কোনও কাজে যাতে বাঁধা না আসে তার জন্য কী করা উচিত জেনে নেওয়া যাক।

বাড়িতে গঙ্গাজল নিশ্চই সবারই থাকে । বাড়ি গঙ্গাজলই বাস্তু মতে আপনার পরিবারের সুসময় ফিরিয়ে আনতে পারে । শুধু তাই নয় এই গঙ্গা জল ঠিক মতো ব্যবহার করতে পারলে আপনার প্রচুর পরিমাণে পূণ্য লাভও হয় । তাই আসুন দেখেনি গঙ্গা জলের কিছু টোটকা যা নিয়মিত পালনে আপনার বাজে সময় কেটে যাবে সঙ্গে গ্রহ দোষ থেকে মুক্তি পাবেন আপনি এবং আপনার পরিবার।

১. আপনার যদি কয়েক দিন ধরেই সময়টা খুব খারাপ যায় এবং বিভিন্ন দিক থেকে অসফলতা চিন্তা ইত্যাদি নানান অসুবিধা আপনাকে গ্রাস করে থাকে, তবে আপনাকে প্রথমে যেটা করতে হবে সেটা হল কয়েকদিন গঙ্গাস্নান ।এটা করলে দেখতে পাবেন যে আপনার খারাপ সময় খুব সহজেই কেটে গেছে । শুধু এটাই শেষ নয় মাঝে মধ্যে গঙ্গা পুজোও দিয়ে আসবেন।

২. আপনার পরিবারে যদি কয়েকদিন ধরেই ঝগড়া অশান্তি ইত্যাদি লেগে থাকে এবং পরিবারের কেউ যদি দীর্ঘদিন যাবত অসুস্থ হয়ে পড়ে থাকেন তবে মুক্তির জন্য বাড়ির দুয়ারে সকাল এবং সন্ধ্যেবেলা গঙ্গাজল ছিটিয়ে দিন। তারপর দেখতে পাবেন ম্যাজিক খুব তাড়াতাড়ি আপনার বাড়ির বাস্তু দোষ কেটে যাবে এমনকি বাড়িতে যারা অসুস্থ হয়ে আছেন অথবা বাড়ির পারিবারিক ঝামেলা এই সমস্ত কিছুর সমস্যা থেকেও মুক্তি পাবেন আপনি। তাই এই কাজটি করতে কখনও ভুলবেন না।

৩. ঘরে যদি কোন পুজো হয় তবে সেখানে শান্তির জল ছেঁটাতে ভুলবেন না এবং পরিবারের সকলকে শান্তির জলের ছিটা দেবেন । এমনকি ঘরের আলমারি এবং টাকা পয়সা যেখানে রাখেন সে সমস্ত জায়গাতেও একটু একটু করে গঙ্গা জলের ছিটে দেবেন । এই টোটকাগুলো কিছুদিন মেনে চলুন দেখবেন খারাপ সময় খুব সহজেই কেটে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button