কোনো শুভ কাজে যাওয়ার আগে এই জিনিসগুলো দেখা উচিত না দেখলে আপনার অমঙ্গল হবে। জেনেনিন কি কি

শাস্ত্র অনুসারে শুভ কাজে যাওয়ার সময় কিছু জিনিস আছে যেগুলো আপনার চোখে পড়লে আপনার কাজের ওপর খারাপ প্রভাব বিস্তার করবে। সেগুলি ভালোও হতে পারে আবার খারাপ ও হতে পারে। তাই বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় কোন জিনিসগুলি দেখলে কি হবে সেই সম্পর্কে কিছু তথ্য জানাবো। শুভ কাজে বেরোনোর আগে কোন কাজটি করা উচিত কোন কাজটি করা উচিত না সেই সম্পর্কে অনেক রীতি নীতি আছে এই দেশে। বিশেষ করে বাঙালিদের মধ্যে এইসব নিয়ম বেশি দেখা যায়। আবার অনেকেই আছে যারা কোনো রীতি নীতি বিশ্বাস করেন না। জ্যোতিষশাস্ত্র বা বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে শুভ কাজে যাওয়ার আগে এমন কিছু তা যদি আপনি দেখেন তাহলে সেই কাজটি খুব ভালো হবে ও মঙ্গলজনক ভাবে সম্পূর্ণ হবে।

আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক শুভ কাজে যাওয়ার আগে কোন জিনিসগুলি দেখলে কি হয়।

শুভ কাজে বের হয়ে যদি কোনো সুন্দরী রমণীর মুখ দেখা যায় তাহলে সেই যাত্রা খুবই শুভ হবে। আর সেই মহিলা যদি বিবাহিত হন তাহলে খুবই ভালো।

বাড়ি থেকে খালি কলসি দেখে বেরোলে অমঙ্গল ঘটে। কিন্তু যদি সেই কলসিতে জল ভরতে যাওয়ার দৃশ্য দেখতে পান তাহলে আপনার যাত্রা খুবই শুভ হবে।

যাত্রা করার সময় মা যদি পিছন থেকে ডাক দেয় তাহলে তা মঙ্গলের সূচনা করে।

শুভ কাজ করার সময় যদি কোনো যৌন কর্মী বা হিজরা কে দেখেন সেটা অত্যন্ত শুভ। যে কাজের জন্য যাবেন তাতে সাফল্য পাবেন।

বাড়ি থেকে শুভ কাজের জন্য বের হওয়ার সময় যদি কোনো বিড়াল রাস্তা পার করে সেটা খুবই অশুভ। যদি সেটি কালো বিড়াল তাহলে তো আরও বেশি অশুভ। কোনো বিড়াল রাস্তা পার পড়লে উল্টো দিকে থেকে গাড়ি আসার জন্য অপেক্ষা করবেন। তবে বিড়ালটিকে যদি কেউ না দেখে আপনার পথ কেটে দেন তাহলে সেই অশুভ যোগ কেটে যাবে।

কোনো শুভ কাজে যাওয়ার সময় কোনো পাখি যদি রাস্তায় আপনার ওপর মল ত্যাগ করেন,তাহলে তা খুব শুভ। এতে আপনার বাড়িতে আর্থিক অবস্থা বৃদ্ধি পাবে এবং ভালো খবর পাবেন। কিন্তু পাখিটি যদি কাক তাহলে কিন্তু অশুভ হবে। এতে শারীরিক ভোগান্তি হতে পারে।

কখনো যদি সকাল সকাল কোনো ভিখারি আসেন। তাহলে আর্থিক ক্ষতির সম্ভবনা থাকে।

বাড়ি থেকে বেরিয়ে যদি পশু পাখির সংগম দেখতে পান তাহলে তা খুবই শুভ। তবে যদি কাকের সংগম হয় তা অশুভ। এমন হলে আপনাকে অনেক বিপদের সম্মুখীন হতে হবে।

এক শালিক দেখলেও আপনার দিনটি অশুভ হবে। তবে যদি জোড়া শালিক দেখেন তা খুবই শুভ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button