এক মজাদার দুর্দান্ত নিরামিষ রেসিপি ক্যাপসি পনির এর রেসিপি দু মিনিটে করতে চাইলে বিস্তারিত জেনে

নিরামিষ রান্নায় পনির এর জুড়ি মেলা ভার, আমরা অনেকেই পনির ভালোবাসি এবং পনির দিয়ে নানা রকম সুস্বাদু পদও আমরা রান্না করি। অনেকেই যারা দুধ খেতে পছন্দ করেন না, পনির খেতে অবশ্যই ভালোবাসেন। তবে পনির খাওয়া মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী, পনিরে থাকে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, যা মানব শরীরের হাড় কে শক্ত করতে সাহায্য করে।

এক মজাদার দুর্দান্ত নিরামিষ রেসিপি ক্যাপসি পনির এর রেসিপি দু মিনিটে করতে চাইলে বিস্তারিত জেনে

পনির কে আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে রান্না করি, কখনো শাহী পনির, পনির বাটার মশালা আরো নানান রকম রেসিপির মাধ্যমে। তা সবই অবশ্য আমরা আজকাল ইউটিউব এর মাধ্যমে জেনে থাকি এবং চটজলদি সেগুলি বাড়ির রান্না ঘরে বানিয়েও থাকি। তেমনই একটি রেসিপি হলো এই নিরামিষ ক্যাপসি পনির, এই রেসিপিটি করতে যে উপকরণগুলি লাগবে তা হল- ৫০০ গ্রাম পনির আলু টুকরো করে কেটে রাখা, একটি সবুজ ক্যাপসিকাম, হলুদ ক্যাপসিকাম, ধনে গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, আদা বাটা ২টেবিল-চামচ, টমেটো বাটা ২ টেবিল চামচ, জিরা গুঁড়া,১ টেবিল-চামচ, গোটা গরম মসলা, মিষ্টি স্বাদ মত, ধনেপাতা কুচি পরিমাণমতো, কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো ১ চামচ, কাজু বাদাম বাটা ২ টেবিল চামচ, পোস্ত বাটা ২ টেবিল চামচ, টক দই ৩ টেবিল চামচ, স্বাদমতো নুন মিষ্টি।

এবার আসা যাক রান্নার প্রণালী তে, প্রথমে কড়াইয়ে তেল সাদা দিয়ে কেটে রাখা আলু গুলোকে ভেজে রাখতে হবে। তারপর পনিরের টুকরোগুলো সামান্য ভেজে তুলে নিতে হবে, এর পরে কড়াইতে একে একে ক্যাপসিকাম গুলি দিয়ে দিতে হবে, কিছুটা ক্যাপসিকাম কুচি ও কিছুটা বাটা দিয়ে দিতে হবে। গোটা গরম মসলা দিয়ে তাতে আদা বাটা, জিরেগুঁড়ো, ধনেগুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কাগুঁড়ো, নুন মিষ্টি, টক দই , কাজু বাদাম বাটা পোস্ত বাটা দিয়ে ভালো করে কষাতে হবে।

এক মজাদার দুর্দান্ত নিরামিষ রেসিপি ক্যাপসি পনির এর রেসিপি দু মিনিটে করতে চাইলে বিস্তারিত জেনে

এরপর তাতে ভেজে রাখা আলু পনির গুলি দিয়ে ভালো করে আবারো কষাতে হবে, ভালো করে কষানো হয়ে গেলে, তাতে ঈষদুষ্ণ গরম জল দিয়ে দিতে হবে ও ঢাকা দিয়ে দিতে হবে কিছুক্ষণের জন্য। তারপর ঢাকা খুলে তাতে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে দিয়ে সকলের সাথে পরিবেশন করুন নিরামিষ এই ক্যাপসি পনির রেসিপিটি।

বাড়ির সকল সদস্যের মন একদম ভালো হয়ে যাবে রান্নার স্বাদ গ্রহণ করে। এছাড়াও হঠাৎ বাড়িতে কোন অতিথি এলে তার জন্য চটজলদি বানিয়ে ফেলতে পারেন এই নিরামিষ রেসিপিটি। নিরামিষ হলেও যেকোনো আমিষ খাবার কে হার মানাবে এটুকু বলা যেতে পারে এবং এই পদটি দেখতেও ভারী সুন্দর হয়, একবার অন্তত বানিয়ে দেখতেই পারেন এই রেসিপিটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button