আপনার কি ভাগ্য খারাপ চলছে ? শনিবার রাতে রাখুন এই জায়গায় ৭ টি লবঙ্গ…

আমাদের হিন্দু শাস্ত্রে গ্রহকে দেবতা রূপে পুজো করা হয়। গ্রহ দেবতাদের মধ্যে রাজা হলেন শনি দেব। আমাদের সময় খারাপ গেলে আমরা বলে থাকি যে এখন শনির দশা চলছে। এই কথা বলার কারন হচ্ছে শনি হলেন সব থেকে রুষ্ট দেবতা। তিনি যদি কারুর উপর রুষ্ট হন তাহলে তার জীবনে খুব খারাপ সময় নেমে আসে।

তাই জীবনে ভালো থাকার জন্য, জীবনে সুখি হওয়ার জন্য, সাফল্য লাভের জন্য শনির কৃপা অবশ্যই দরকার। শনিদেবের বার হল শনিবার। শনিদেবকে সন্তুষ্ট করার জন্য শনিবার শনিদেবের পুজো করতে হবে। শনিদেবের আরাধ্যা হলেন মা কালী। তাই শনিদেবকে সন্তুষ্ট করতে মা কালীরও পুজো করতে হবে।

আরো একটি কাজ আছে যা প্রত্যেক শনিবার করলে আপনার ভাগ্য ফিরে যাবে। সেই উপায় অবলম্বন করলে শনিদেব আপনার ওপর কৃপা করে আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে সাফল্যের চূড়ায়। আসুন তাহলে জেনে নিন সেই কাজটি কি?

এটি একটি ঘরোয়া টোটকা। টোটকাটি ব্যবহার করুন নিশ্চয়ই কাজে আসবে। তবে কাজটি করার আগে অবশ্যই মনে বিশ্বাস রাখতে হবে। মনে যদি বিশ্বাস না থাকে তাহলে কোন ফল পাবেন না। উল্টে বিপরীত ফল ভুগতে হতে পারে।

এই টোটকার জন্য প্রথমে দরকার সাতটি লবঙ্গ, অল্প কিছু সর্ষে, একটা পরিষ্কার সাদা কাপড় আর ঝাঁটা দিয়ে কুড়নো মাটি। লবঙ্গগুলি অবশ্যই গোটা হতে হবে, ভাঙ্গা হলে চলবে না। আর অবশ্যই লক্ষ্য রাখতে হবে কাপড়টি যেন পরিষ্কার এবং সুন্দর হয়।

এরপর কোন এক শনিবার দেখে সব জিনিসগুলি নিয়ে শনিদেবের মন্দিরে যান। গিয়ে ভগবান শনির সামনে প্রথমে সাদা কাপড়টি রাখুন, তারপর একে একে লবঙ্গগুলি শনিদেবের চরণে ছুঁইয়ে প্রনাম করে সাতবার ঘোরান। সব লবঙ্গগুলি এইভাবে করে কাপড়ের উপরে রাখুন।

তার উপর কিছুটা ঘর কুড়ানো ধুলো দিন, তার উপর সর্ষেগুলো দিন। তারপর সেটিকে একটা পোটলার মতো করে বেঁধে ফেলুন আর সেটি সারা রাত শনিদেবের সামনে রেখে দিন আর নিজের মনস্কামনা বলুন।

পরের দিন সকালে স্নান করে শুদ্ধ বস্ত্রে সেই পোটলাটিকে নিয়ে কোন বড় গাছের তলায় বা কোন ফাঁকা স্থানে পুঁতে দিন। কিন্তু খেয়াল রাখবেন যাতে আপনাকে এই কাজ করতে কেউ দেখতে না পায়। আর পুঁতে ফেরার সময় ভুল করেও পিছনে ফিরে তাকাবেন না। এর ফল উল্টো হতে পারে। এই কাজগুলি আপনি তখনই করবেন যখন আপনার মনে বিশ্বাস থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button