আপনার কাছে যদি এই ২ টাকার কয়েন থেকে থাকে তাহলে আপনি ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন

আপনাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যাদের পুরনো কয়েন এবং পুরনো নোট জমানোর একটি শখ রয়েছে। আপনি যদি তাদের মধ্যে একজন হন তাহলে আপনার জন্য রয়েছে একটি সুখবর। সম্প্রতি অনলাইনে পুরনো কয়েন অথবা নোট বিক্রি করে লাখপতি হওয়ার দুর্দান্ত সুযোগ এসে গেছে আপনার কাছে। বৈশিষ্ট্যপূর্ণ দুই টাকার কয়েন যদি আপনার কাছে থেকে থাকে, তাহলে অদূর ভবিষ্যতে আপনি হয়ে যেতে পারেন লাখপতি।

পুরনো দুই টাকার কয়েন আপনার কাছে থাকলে আপনি তার বিনিময় পেতে পারেন ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত। ভারত সরকার ইতিমধ্যেই বেশ কিছু কয়েন এবং নোট ছাপা বন্ধ করে দিয়েছেন। তাদের মধ্যে অন্যতম হলো ৫০ পয়সা, ২৫ পয়সা, এক টাকা দুই টাকা এবং ৫ টাকার বিশেষ কিছু কয়েন। এসমস্ত নোট বর্তমানে অনলাইন নিলাম করা হচ্ছে। এই বিশেষ ধরনের টাকা যদি আপনি খুঁজে বার করতে পারেন এবং নিলামে তুলতে পারেন তাহলেই হয়ে যাবে কেল্লাফতে।

তবে বিশেষ বৈশিষ্ট্য গুলো থাকলেই তবে আপনি লাখপতি হতে পারেন।বিশেষত টাকাটি ১৯৯৪, ১৯৯৫ , ১৯৯৭ ও ২০০০ সিরিজের এই টাকা থাকলেই ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পাওয়া সম্ভব৷ তবে মাথায় রাখতে হবে এই টাকা প্রথমবার ১৯৮২ সালে বাজারে এসেছিল৷ এই সমস্ত কয়েন তামা এবং নিকেল এর মত ধাতু দিয়ে প্রস্তুত করা হয়। আপনার কয়দিন থাকে পঞ্চম জর্জের ছবি তাহলে, আপনার এক টাকার কয়েনের মূল্য হতে পারে ৯ লক্ষ টাকা।

আপনি যদি কুইকার নামক অ্যাপের সাহায্যে এই দুই টাকার কয়েন বিক্রি করতে চান তাহলে বিক্রেতা হিসেবে নিজের নাম সকলের আগে নথিভুক্ত করতে হবে। এরপরে দুই টাকার কয়েনের ছবিতে ক্লিক করে ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। দিতে হবে নিজের ঠিকানা মোবাইল নাম্বার এবং ইমেইল আইডি। এই সমস্ত তথ্য ওয়েবসাইটে ভেরিফাইড হবে, তারপর ক্রেতারা সরাসরি আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করে নেবে। পেমেন্ট ডেলিভারি অনুযায়ী নিজের কয়েন অথবা টাকা বিক্রি করতে পারবেন আপনি।।

5 Comments

    1. কেন কিছু দিন আগে বাংলাদেশের সোনালি ১ টাকার কয়েন থাকলে ৯ কোটি টাকা পাওয়া যাবে। সেই পোষ্ট টা আর দেনা কেন আমার কাছে খছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button