ভারতের প্রথম গুপ্তচর মহিলা যিনি দুষ্ট মহিলার ছদ্ম বেশে ৮০ হাজারের বেশি কেস সলভ করেছেন , জানেন ইনি কে?

আপনারা হলিউডের জেমস বন্ড সিরিজ এর কথা তো শুনে থাকবেন। বিদেশে মহিলা স্পাইয়ের চল আছে। কিন্তু ভারতে সেই ভাবে মহিলা গোয়েন্দা দেখা যায় না। আজ আমরা আপনাদের ভারতের প্রথম মহিলা গোয়েন্দার কথা বলব।

ভারতীয় জেমস্ বন্ড নামে খ্যাত রজনী পণ্ডিত 22 বছর বয়স থেকেই পড়াশোনা পাশাপাশি টাকা রোজগার করতে চাইছিলেন। রজনী যেকোনো ব্যাপারের শেষাবধি না যাওয়া পর্যন্ত থামতেন না। তিনি এই গুণ তার বাবার থেকে পেয়েছিলেন। তার বাবা একজন সিআইডি অফিসার ছিলেন।

একবার রজনীর এক সহকর্মীর বাড়িতে চুরি হয়ে যায়। সেই মহিলা সহকর্মী রজনী কে দায়িত্ব দেন চোরকে খোঁজার। মহিলাটির নিজের বৌমার ওপর সন্দেহ ছিল। রজনী কিছুদিন তদন্ত করার পর কেস সল্ভ করে দেন। তিনি জানান চোর আসলে মহিলা সহকর্মীটির ছেলে ছিল।

এরপর থেকে রজনীর মার্কেটিং হতে থাকে। অনেকেই তার কাছে কেস নিয়ে আসতে থাকেন আর রজনী কেস সল্ভ করতে থাকেন। একসময় এই খবর তার বাবা জানার পর তাকে আটকাননি।

রজনীর কাছে এক বাবা ও ছেলের হত্যার কেস আসে। রজনী সেই কেস সল্ভ করার জন্য কাজের লোক সেজে মৃত ব্যক্তির বাড়ি চলে যান। সেখানে তিনি 6 মাস থাকার পর জানতে পারেন মৃত ব্যক্তির স্ত্রী ও স্ত্রীয়ের প্রেমিক মিলে এই হত্যা করেছে।

মিডিয়া রিপোর্টস অনুযায়ী ছোটো-বড়ো মিলিয়ে 80 হাজারের বেশি কেস সল্ভ করেছেন রজনী। বিহাইন্ড ফেসেস ও মায়াজাল নামের বইও লিখেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button