বাচ্চা মেয়েটির হাতের লেখা দেখলে ভিমড়ি খাবেন

হাতের লেখা সুন্দর হলে সেই মানুষটির প্রতি আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি আপনাআপনি চেঞ্জ হয়ে যায়। একটি ভালো হাতের লেখা একটি মানুষের চরিত্র বিচার করতে পারে। তেমনি একটি কথা আমরা সম্প্রতি জানতে পেরেছি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে।বাচ্চা মেয়েটিপড়াশোনা করে অষ্টম শ্রেণীতে। কিন্তু গোটা বিশ্বের মানুষ চেনে সেই বাচ্চাটা কে। কিন্তু এমন কি করেছে যার জন্য তার এতটা জনপ্রিয়তা বেড়ে গেছে সারা বিশ্বে?

আসলে এত অল্প বয়সে সে রপ্ত করেছে সুন্দর হাতের লেখা। শুধুমাত্র সুন্দর বললে ভুল বলা হবে, তার হাতের লেখা নিখুঁতের একদম কাছাকাছি। ছোট্ট মেয়েটির নাম প্রকৃতি মাল্লা। নেপালের অধিবাসী এই ছোট্ট মেয়েটি। কয়েক মাস আগে নেপালের এক ব্যক্তি ছোট মেয়েদের হাতের লেখার একটি ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে দেন।

ছোট মেয়েদের এই হাতে লেখা ভাইরাল হতে বেশি সময় নেয় নি। এত অল্প বয়সে এত সুন্দর হাতের লেখা কিভাবে রপ্ত করলো ছোট্ট মেয়েটি,সেটা ভেবে সত্যি অবাক হয়ে যাচ্ছেন জনগণ। সম্প্রতি তার হাতের লেখা পৃথিবীর সবথেকে সুন্দর হাতের লেখা স্থান অধিকার করেছে।

যদিও ভাইরাল হওয়া এই খবরটি অনেক দিনের পুরনো, কিন্তু মানুষের মধ্যে অনেকদিন জায়গা করে নিয়েছে এই ভিডিওটি। ছোট মেয়েটি আজকে তার হাতের লেখার জন্য গোটা বিশ্বে পরিচিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button