দুধের ব্যবসায় দুধের ঘাটতি দেখেও চাকরি ছেড়ে নিজেই দুধের ব্যবসা শুরু করে আজ যেভাবে তিনি 200 কোটি টাকার বেশি মূল্যের দুধের ব্যবসা দাঁড় করালেন

আমাদের দেশ প্রতিদিন উন্নতি করে চলেছে। এখন আমাদের দেশে এক্সপ্রেসওয়ে, হাইওয়ে, বড়ো বড়ো বিল্ডিং প্রভৃতি আছে। এখন আমাদের দেশের যুবসমাজ সরকারি চাকরি ও ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রতি ঝোঁক দেখাচ্ছে। আমাদের দেশ কৃষিপ্রধান দেশ।

আজ আমরা আপনাদের এমন এক ব্যক্তির কথা বলব যিনি টাটা গ্রুপে নিজের চাকরি ছেড়ে দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত দ্রব্য প্রস্তুত সেক্টরে কাজ শুরু করেন। আজ তার ব্যবসা কোটি টাকার লাভ করে।

ইনি হলেন শ্রীকুমার মিশ্রা। শ্রীকুমারের একটি ভালো দিক হলো তিনি বাস্তবের মাটিতে পা দিয়ে চলেন। তিনি অনুভব করেন দেশে ভালো দুধের অভাব আছে এবং ভবিষ্যতে দুধের চাহিদা বাড়বে। এখান থেকেই শুরু হয় তার কোম্পানি “মিল্ক মন্ত্র”।

কাজ শুরু করার পরপরই বেশকিছু ইনভেস্টারদের তার ব্যবসায় ইনভেস্ট করতে রাজি করিয়ে নেন। প্রথম বছরেই তার এই ব্যবসা 18 কোটির রেভেনিউ অর্জন করে। নিজের বুদ্ধি ও পরিশ্রমের জোরে “মিল্ক মন্ত্র” র সাথে 40 হাজার কৃষকদের যুক্ত করতে সমর্থ হন।

“মিল্ক মন্ত্র” বর্তমানে দুধ ছাড়াও অন্যান্য ডেয়ারি প্রোডাক্ট গোটা দেশে সাপ্লাই করে থাকে। ওড়িশাতে সফলতা পাওয়ার পর এই কোম্পানিকে শ্রীকুমার ঝাড়খণ্ড ও পশ্চিমবঙ্গতেও লঞ্চ করেছেন। ওড়িশার পুরীতে মেইন ব্রাঞ্চ আছে এই কোম্পানির। এখানে প্রতিদিন 70 হাজার লিটার দুধের ক্যাপাসিটি আছে। “মিল্ক মন্ত্র”-র সারা বছরের টার্নওভার 120 কোটি টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button