কুর্নিশ, নিজের 3 লাখ টাকা দিয়ে রাস্তা মেরামত করে দিলেন এই অফিসার, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসার ঝড় নেতিজনেদের

আমরা অনেক সহজেই পুলিশ মানেই একটি খারাপ চিন্তা ভাবনা মাথায় আনি, এটি একটি বহুল প্রচলিত কথা, যে পুলিশ মানেই বাঁ হাতি টাকা নেয়, তবে এ পৃথিবীতে ভালো মানুষেরও অভাব নেই, শুধু চাই দৃষ্টি, খুঁজে বার করার।

তেমনই একটি ঘটনা উঠে এসেছে যা শুনলে বা দেখলে চমকে উঠার মত। পুলিশ কর্মকর্তা নিজের পকেট থেকে প্রায় তিন লাখ টাকা খরচ করে রাস্তা মেরামত করে দিয়েছে, শুধুমাত্র সাধারন মানুষের স্বার্থে। নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস’-এর প্রতিবেদন থেকে আমরা জানতে পারি, মাদাপুরা ও বেলাটুর এর মাঝে যে ৫ কিলোমিটার রাস্তা আছে সেটি ছিল সম্পূর্ণ গর্তে ভরা, যার ফলে সাধারণ মানুষের যাতায়াতের খুবই অসুবিধা হতো এবং বর্ষাতে তার অবস্থা আরো করুণ হয়ে থাকতো।

এই রাস্তাটি এইচডি কোর্টকে তালুকের দেবমন্দিরের সাথে যুক্ত এবং এই রাস্তাটিতে ৩০ টি গ্রামের লোক যাতায়াত করেন, যার ফলে রাস্তা মেরামত করার প্রয়োজনীয়তা খুবই দেখা দিয়েছিল। কিন্তু সেখানকার কর্পোরেশনকে বলা সত্বেও এমনকি প্রশাসনকে বলা সত্বেও কোন উপায় বের হয়নি, যার ফলে শেষ পর্যন্ত মহীশুরের এক সহকারি পুলিশ এর উপ পরিদর্শক রাস্তা মেরামতের কাজ টি দায়িত্ব নেন এবং নিজের পকেট থেকে প্রায় তিন লাখ টাকা খরচা করে সেই রাস্তা মেরামত করান। সেখানকার মানুষ জন কর্তৃপক্ষ নির্বাচিত প্রতিনিধিদের কাছে আবেদন ও স্মারকলিপি জমা দিলেও সেদিকে কারোরই নজর। নেই কোনো দিন, শেষ পর্যন্ত সেখানকার স্থানীয় লোকেরা পৌঁছায়, এ এসআই এস দোরস্বামী কাছে তিনি মানুষের সমস্যার কথা শুনে সাহায্যের আশ্বাস দেন এবং তার যথেষ্ট নাম আছে সে এলাকাজুড়ে, কারণ তিনি লোকের সাহায্যার্থে সবসময় প্রস্তুত।

তার নিজস্ব সেবা ট্রাস্ট আছে, যা তিনি স্ত্রী চন্দ্রিকা সাথে পরিচালনা করেন। এদিন মঙ্গলবার তিনি রাস্তার কাজ চলাকালীন শ্রমিকদের সাথেও হাত মেলান তাদের কাজে সাহায্য করেন। তাঁর আরো এক দৃষ্টান্ত হল তিনি দুজন নাবালিকা মেয়েকে গ্রহণ করেছেন, যারা এই পৃথিবীতে বাবা মা ছাড়া হয়েছে, অনাথ, মাথার উপরে শেষ আশ্রয়টুকু তাদের নেই।

এরকম মহৎ ব্যক্তিদের জন্যই আজ হয়তো সাধারণ মানুষ নিশ্চিন্তে থাকে এবং এই ভালো মানুষের জন্যই হয়তো পৃথিবী আজও বেঁচে আছে, মনুষ্যত্ব আজও বেঁচে আছে। মানুষের উপর থেকে মানুষের বিশ্বাস হারায় নি , এভাবেই বেঁচে থাকুক আগামীর পৃথিবী, যেখানে সবাই হাতে হাত মিলিয়ে সমস্ত প্রতিকূলতার মুখোমুখি দাঁড়াবে। যেখানে আর কোন প্রতিকূল পরিস্থিতির মানুষ কে কাবু করতে পারবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button