এবার মামা বাড়ী গিয়ে মামীর সাথে ভাগ্নের পরকীয়া, স্রেফ সন্দেহের বশে অতপর যা ঘটলো

শুধুমাত্র সন্দেহের বশে আবারও এক মর্মান্তিক পরিণতির সম্মুখীন আমরা। ঘটনাটি ঘটেছে দুর্গাপুরের নিউ টাউনশিপ থানা এলাকায়, যেখানে সন্দেহ করা হয় মামির সঙ্গে ভাগ্নের পরকীয়া সম্পর্ক নিয়ে, যে কারণে মামিকে পিটিয়ে মারার অভিযোগে ইতিমধ্যেই পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তারও করেছেন।

তবে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে এবং সেই তদন্ত করতে গিয়ে স্থানীয় সুত্র যে সমস্ত বিষয়গুলি পুলিশ জানতে পেরেছে তা হল, আজগর আলীর সাথে আকিদা বিবির ২০১৭ সালে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই অশান্তি পিছু ছাড়ে নি তাদের দাম্পত্যজীবনে। অশান্তির মূল কারণ হিসেবে জানা যায় আজগারের ছোটমামীকে কেন্দ্র করে বিবাদ। আজগারের স্ত্রী আকিদা বিবি মামির সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগ তোলেন বারবার এবং তার জেরেই আজগারের সঙ্গে প্রতিনিয়ত অশান্তি।

তবে বেশ কয়েকবার অশান্তি হয়ে মিটিয়ে নেবার চেষ্টা করা হলেও, আদতে তা কাজ হয়নি। যার ফলে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে এক মর্মান্তিক রূপ নেয় এই সম্পর্ক। আকিদার মা বাবা মেয়ের কথা মত যমুনা থেকে হরিবাজারে আসেন এবং শেষপর্যন্ত শুরু হয় তুমুল অশান্তি। যাতে আকিদার বাবা শেখ আক্তারুল ও মা কুশিদা বিবি মামিকে মারধর করে, পরে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

ইতিমধ্যেই এ ঘটনায় যথেষ্ট উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়, এদিন শুক্রবার দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে তোলা হয় ঐ অভিযুক্তদের। এ খবর শুনে সোশ্যাল মিডিয়া যথেষ্ট স্তব্ধ, তবে সকলেই চাই সত্যিটা সামনে আসুক এবং অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তি হোক, পুলিশ যতটা তাড়াতাড়ি সম্ভব এই ঘটনার নিষ্পত্তি ঘটাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button