এটা কি স্বাভাবিক মৃ-ত্যু নাকি খু-ন? সুশান্তের মৃ-ত্যু প্রসঙ্গ টেনে সেই কুপার হাসপাতালের দিকে প্রশ্ন তুলছে একাংশ

আবার একটি মৃ-ত্যুর ঘটনা। আবারো উঠে এলো মুম্বাইয়ের কুপার হা-সপাতালের নাম। আরো একবার সিদ্ধার্থের মৃ-ত্যুর পর উঠে এলো সুশান্ত সিং রাজপুত এর নাম। দুজনেই কম বয়সে আমাদের সকলকে ছেড়ে চলে গেলেন। দুজনের আকস্মিক মৃ-ত্যুতে হ-তবাক সকলে। দুজনে ছোটপর্দা থেকে উঠে এসে নিজের জায়গা করে নিয়েছিলেন বড়পর্দায়। কেমন যেন সবকিছু মিলে মিশে একাকার হয়ে যাচ্ছে। স্বাভাবিক মৃ-ত্যু নাকি অন্য কিছু, প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সকালে অভিনেতাকে কুপার হা-সপা-তালে নিয়ে আসা হয়েছিল। সেখানেই তাকে মৃ-ত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ময়-না তদ-ন্ত করার চিন্তাভাবনা করা হলেও সিদ্ধার্থের পরিবারের সকলে জানিয়ে দেন, অভিনেতার মৃ-ত্যু একেবারে স্বাভাবিক কারণে হয়েছে। কোন ময়-নাতদ-ন্তের দরকার নেই।

কিন্তু অভিনয়ের ভক্তদের অনেকেই মনে করেন, এমন করে একজন অভিনেতা বা বলা ভাল একটি তরতাজা পুরুষ পৃথিবী ছেড়ে চলে যেতে পারে না। এর পেছনে অন্য কোনো কারণ আছে। সিদ্ধার্থের মৃ-ত্যুর আসল দিকটি সকলের থেকে আড়াল করছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

ঠিক একইভাবে সুশান্তের মৃ-ত্যুর পর ময়-নাতদ-ন্ত নিয়ে কারসাজি করা হয়েছিল। এক্ষেত্রে মনে করা হচ্ছে, ময়-না তদ-ন্ত করতে দিলে হয়তো সত্য উদঘাটন হোত সকলের সামনে। এর পিছনে কোন কারণ আছে কিনা তা আর জানা সম্ভব নয়।

প্রসঙ্গত, দিব্যা ভারতী, পারভিন ববি, শ্রীদেবীর মত অভিনেত্রীকে নিয়ে আসা হয়েছিল এই হা-সপাতলে। সমস্ত অস্বাভাবিক মৃ-ত্যুর পরে কেন উঠে আসে এই হাসপাতালের নাম, কেন কাউকে নিয়ে যাওয়া হয় না লীলাবতী হাসপা-তালে? প্রশ্ন থেকেই গেল সকলের মনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button