আপনি ইংরেজি পারেন না IPS পাশ করে কাজ করবেন কি করে? মুখের ওপর জবাবে তিনি যা বলেছিলেন

নিজের বুদ্ধিমত্তা দিয়ে আই পি এস চাকরির ইন্টারভিউ পাস করে আই পি এস অফিসার হয়ে গেল এক যুবক।বুঝিয়ে দিল ইংরাজি কোনো বাধা হয়ে দাঁড়ায় না । ইংরাজি না জানলেও নিজের ক্যারিয়ার করা যায়।অদম্য সাহস আর জেদ আর বুদ্ধি(মেধা) থাকলেই জীবনে সফলতা পাওয়া যায়।

ভিডিও টিতে একটি ছেলে আই পি এস এর ফাইনাল ইন্টারভিউ এ ইংরাজি নিয়ে সমস্যা হয় তা সে জানালে যারা ইন্টারভিউ নিচ্ছিলেন তারা ছেলেটিকে বললেন এভাবে কি ভাবে দেশের কাজ করবে? তখন কিছুটা ভেবে ছেলেটি অত্যন্ত বুদ্ধি দিয়ে বলে তার প্রচন্ড জল পিপাসা পেয়েছে । ইন্টারভিউ বোর্ডের অফিসার তাকে কাঁচের গ্লাসে জল দেয় কিন্তু সে বলে স্টিলের গ্লাসে জল খাবে ।

তখন অফিসার বলে জল খাওয়ার সাথে কাঁচর গ্লাস বা স্টিলের গ্লাস এর কি এসে যায়?তখন ছেলেটি বলে ঠিক ই বলেছেন তেমন ই ইংরাজি না বলতে পারলে তাতে কাজে কি আসে যায়? কার্যক্ষমতা দরকার কাজের ক্ষেত্রে ভাষা গুরুত্ব রাখে না। তখন অফিসাররা তার কথার গুরুত্ব বোঝে আর তাকে ইন্টারভিউ তে নির্বাচন করে।আর তাকে আই পি এস অফিসার করে।আমরা ভিডিও টির শেষে ছেলেটির পরিচয় পাই ।

ছেলেটি হল আই পি এস মনোজ কুমার শর্মা। যার এমন ভিডিও অনেক চাকুরি প্রার্থীর মনোবল দৃঢ় করবে বলে আশা করা যায়। এটা থেকে বোঝা যায় যে , ইংরাজি শুধুমাত্র একটি ভাষা।সেটা না বলতে পারা কাজের ক্ষেত্রে কি আসে যায়? বাংলা ,অসমীয়া ,সাঁওতাল এই সব ভাষার মতো ইংরাজিও একটি ভাষা।সেই ভাষাটা জানলেই যে সে বুদ্ধিমান আর স্মার্ট তার কোনো ব্যাপার নয়।যদিও সেটাই সবাই মনে করে ।

ইংরাজি যারা মুখ দিয়ে গড় গড় করে বলতে পারে তারা নিজেদের অনেক বুদ্ধিমান মনে করে। আর যারা তা বলতে পারে না তাদের হেয় মনে করে।যেটা উচিত নয়। এই সমস্ত ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় থাকা জরুরি এতে অনেকের মনোবল বাড়ে।অনেকের জীবনে অনেক উন্নতিও ঘটে। শুধু মাত্র হাসির ভিডিও ই সোশাল মিডিয়ায় প্রয়োজন নয় জীবনে শিক্ষামূলক ভিডিও দরকার হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button