এবার ৬৬ পল্লির শারদোৎসব কমিটির, নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত, পুরোহিতের ভুমিকায় দেখা যাবে চারজন মহিলা পুরোহিতকে।

সমাজের কিছু নিয়ম কানুনের মধ্যে চিরকাল নিজেদের বেঁধে রাখে নারীরা, এক কথায় বলা ভালো নিজেকে বেঁধে রাখতে বাধ্য হয় তারা। কিন্তু বর্তমান সমাজে নারীরা যত শিক্ষিত হচ্ছে, তত অর্থহীন সংস্কারকে ছুঁড়ে ফেলে দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন সাফল্যের দিকে। বাল্যবিবাহ থেকে শুরু করে সতীদাহ প্রথা, সবকিছুই নারীদের নিচু দেখানোর জন্য তৈরি করা হয়েছিল। সে সমস্ত বেড়াজাল থেকে নিজেদের মুক্ত করছে আজকের নারী সমাজ।

সম্প্রতি ব্রহ্মা জানেন গোপন কর্মটি, সিনেমার দ্বারা একজন মহিলা পুরোহিতের জীবনী তুলে ধরা হয়েছিল আমাদের সকলের সামনে। মুখ্য চরিত্রে ঋতাভরী চক্রবর্তী একজন মহিলা পুরোহিতের জীবনী সকলের সামনে তুলে ধরেছেন। অসম্ভব সুন্দর এই সিনেমাটি আমাদের অনেক শিক্ষা দিয়েছিল। বাবা মায়ের ঋণ যে শুধুমাত্র কনকাঞ্জলি দিয়ে শোধ করা যায়না তা ভীষণ সুন্দর করে দেখিয়ে ছিল এই সিনেমা। সিনেমা আমাদের শিখিয়েছিল কোন না কোন ভোগ্য বস্তু নয়, তাই কন্যাদান কথাটির কোনো যোগাযোগ নেই বাস্তবের সঙ্গে। রজস্বলা হওয়া সত্ত্বেও একজন মহিলা খুব অনায়াসে পুজো করতে পারে একথাও আমাদের শিখিয়েছে এই সিনেমা। নারী হয়েও পুজো এবং বিবাহের অনুষ্ঠান খুব স্বাচ্ছন্দে করা যায় একথা আমরা দেখতে পেয়েছি এই সিনেমার মাধ্যমে।

তবে এবার সিনেমা হতে চলেছে বাস্তব। নিঃসন্দেহে ভারতের ইতিহাসে প্রথম দুর্গাপূজা করতে চলেছেন মহিলা পুরোহিত। এই ইতিহাস যেন প্রত্যেকটি মহিলাদের কাছে গর্বের বিষয়। খবর পাওয়া মাত্র ঋতাভরী জানিয়েছেন, ভীষণভাবে আনন্দ পেয়েছি কথাটি শুনে। সিনেমা আসে মানুষকে আনন্দ দেবার জন্য কিন্তু কোন সিনেমা যদি মানসিক ভাবে মানুষকে পাল্টে দিতে পারে তা যে কোন পুরস্কারের থেকে বড় প্রাপ্তি।

প্রতিবছর দুর্গাপূজাতে কোনো না কোনো থিম নিয়ে পুজো করা হয়। যদিও মহামারীর জন্য গত দুই বছর সেই ভাবে জাঁকজমকপূর্ণ দুর্গা পুজো করা সম্ভব হয়নি। তবে এবারে ৬৬ পল্লী প্রত্যেক পূজা মন্ডপকে পিছনে ফেলে এগিয়ে গেল। প্রতিমা, অথবা আলোকসজ্জা নয়, মহিলা পুরোহিত দিয়ে পুজো সম্পন্ন হবে তাদের ক্লাবে। নিঃসন্দেহে এই বছর দুর্গাপূজায় এর থেকে বড় কিছু হতে পারে না।

বাস্তব এবং সিনেমা যেখানে একাকার হয়ে যায়, সেই দুর্গাপূজা একটি আলাদা মাত্রা পায়। এবছর মহিলা পুরোহিতকে চাক্ষুষ দর্শন করার জন্য যে দর্শনার্থীদের ভীড় উপচে পড়বে, তা বলাই বাহুল্য। এই বছর নতুন করে নতুন উদ্যোমে নারীকে বরণ করবে একজন নারী। বলাই বাহুল্য এই দৃশ্য আমাদের সকলের জন্য একটি শিক্ষনীয় দৃশ্য হতে চলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button