রোশনের জীবনের নতুন প্রেমের আগমন? ছবি পোস্ট করে শ্রাবন্তীকে খোঁচা দিতে নিজেই ফাঁসলেন।

টলিউডের সবথেকে দুষ্টু মিষ্টি নায়িকা শ্রাবন্তীকে নিয়ে সংবাদমাধ্যমে কম চর্চা হয়নি, তাতে তবু বিন্দুমাত্র কর্ণপাত করেনি শ্রাবন্তী। এদিনও আবারও উঠে এলো শ্রাবন্তীর প্রসঙ্গ কারণ নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে একটি ছবি পোস্ট করেছেন রোশন , যে ছবির পোস্টে কমেন্ট বক্সে শ্রাবন্তী কমেন্ট করেন। একরকম তীক্ষ্ণ উক্তি করেছেন শ্রাবন্তী এদিন, যা নিয়ে এই সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন করে চর্চা আবারো শুরু হয়েছে।

আমরা জানি তৃতীয় স্বামী রোশনের সাথে শ্রাবন্তীর আইনত বিচ্ছেদ এখনো না হলেও গত দুই হাজার কুড়ি সালের অক্টোবর মাস থেকে তারা আলাদা থাকছেন। তবে শোনা যাচ্ছে শ্রাবন্তী আবারও প্রেম করছেন অভিরুপ নাগচৌধুরীর সঙ্গে। তবে এর কোনও সঠিক তথ্য পাওয়া যায়নি এখনো। তবে এতেই যথেষ্ট অবসাদে ভুগছিলেন রোশন, কারণ তিনি ইতিমধ্যেই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন, একটি আবেদনও করেছেন আদালতে যে, তিনি শ্রাবন্তীর সমস্ত ভুল ত্রুটি ভুলে সম্পর্কটি আবারো প্রতিস্থাপন করতে চান। একে আইনি ভাষায় বলে রেস্টিটিউশন অফ কনজুগল রাইটস অর্থাৎ কোন বৈবাহিক অধিকারের পুনঃপ্রতিষ্ঠা ধারায় মামলা।

এই ধারাতেই মামলা করেছেন রোশান সিংহ ইতিমধ্যে শুনানির দিন ধার্য হয়েছে। তবে এত বড় উদার মন থাকে না কারোর যা রোশনের আছে। তাই তিনি এত বড় কথাটি বলতে পারলেন, আসলে মানুষই ভুল করে আবার মানুষই তা শোধরায়। মানুষের উচিত ক্ষমা করে দেওয়া, ক্ষমাই পরম ধর্ম। সেটি করতে চেয়েছেন রোশন সিং, তবে ইতিমধ্যে রোশন যথেষ্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচিত, তার কারণ তার সোশ্যাল সাইট এর প্রোফাইলে এমনই পোস্ট করেন যা দেখে সকলেরই চোখ ধাঁধিয়ে যায়।

সম্প্রতি তিনি তার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল একটি ফটো শেয়ার করেছেন যেখানে তাঁর হাতে দেখা গেছে একটি মোরগকে, কিন্তু ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন তার জীবনের নতুন চিক অর্থাৎ অল্প বয়সী নারী। যদিও স্পষ্ট নয় যে তিনি কার দিকে ইঙ্গিত করে এটি বলতে চেয়েছেন। কিন্তু রোশানের সেই পোস্টে শ্রাবন্তী কমেন্ট করেছেন যে, তার হাতে ধরা প্রাণীটি মুরগি নয় মোরোগ । তাই কখনই চিক হতে পারে না। এই নিয়ে আবারও চর্চা শুরু হয়েছে কারণ আমরা সবাই জানি শ্রাবন্তী তৃতীয় বিয়েটি এক বছরও টেকেনি, তার মধ্যেই তাদের পথ আলাদা হয়ে গেছে।

অপরদিকে শ্রাবন্তির ইনস্টাগ্রম প্রফাইল ধরা পড়েছে ভূস্বর্গের মনোরম চিত্র, যেখানে শ্রাবন্তীকে দেখা হয়েছে কালো রঙের টি-শার্ট প্যান্ট পড়ে একদম ক্যাজুয়াল লুকে, পায়ে স্নিকার্স, চোখে চশমা এবং সেই ছবির ক্যাপশনে লেখা পৃথিবীর সবথেকে সুন্দর জিনিস টা কে চোখে দেখা যায় না স্পর্শ করা যায় না শুধু মন দিয়ে অনুভব করতে হয়, অনুভবে ছুঁতে হয় এখানেও কাকে উদ্দেশ্য করে তিনি এহেন উক্তি করেছেন তাও স্পষ্ট নয়, তবে সদ্য কাশ্মীর ঘুরে এলেন একা নয় সঙ্গে ছেলে ও হবু বৌমাকে নিয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button